Monday, July 13, 2020
Home আওয়ামীলীগ নিজেকে প্রচার না করে মানবতার ফেরিওয়ালা হয়ে কাজ করে চলেছেন জেলা পরিষদ...

নিজেকে প্রচার না করে মানবতার ফেরিওয়ালা হয়ে কাজ করে চলেছেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জননেতা কনক কান্তি দাস ॥ চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে কর্মহীন মানুষের পাশে ত্রান সামগ্রী পৌছিয়ে দিচ্ছেন

স্বপন অধিকারী, ঝিনাইদহ- ঢাকার একটি বে-সরকারী হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে জেলার মানুষের ভালোবাসার টানে তিনি ঝিনাইদহে ফিরে এসেছেন। করোনার দুর্যোগে কর্মহীন মানুষের পাশে ত্রান সামগ্রী পৌছিয়ে দিচ্ছেন।

প্রচার বিমুখ জননন্দিত এ নেতা মানুষের ভালোবাসা আর আর্শীবাদে সিক্ত হয়েছেন। অসুস্থ শরীর নিয়ে জেলার ১৮ লাখ মানুষের সেবা দিতে ছুটে চলেছেন এ প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে।


ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সাবেক সফল চেয়ারম্যান, বর্তমানে ঝিনাইদহ জেলা অাওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদের জননন্দিত চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস একজন দানশীল, অসম্প্রদায়িক ও মানবতার ফেরিওয়ালা বলে জেলায় পরিচিত। সারা বিশ্বে যখন অদৃশ্য শক্তি করোনার ছোবলে রাজপথে লাশের মিছিল বাড়ছে ;অন্য দেশের মত অামার প্রিয় সোনার বাংলাতেও সংক্রমন দেখা দিয়েছে।

তিনি নিজে শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন ঢাকাতে । জেলাবাসির পাশে দাড়ানোর জন্য ছুটে অাসেন নিজ এলাকায়। তিনি অসুস্থ অবস্থায় প্রথমেই জেলাবাসিকে করোনা ভাইরাস বিষয়ে সচেতন করার জন্য ২৫টি প্রচার মাইক, লিফলেট, বিল বোর্ড, সাবান, হেন্ড সেনিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করেন। যা জেলাবাসির মুখে মুখে। জনপ্রতিনিধিসহ জেলা পরিষদের কর্মকর্তা- কমর্চারীদের একদিনের বেতন জেলা প্রশাসকের ত্রান খাতে জমা দেন।

পরবর্তি পর্যায়ে সরকারী, বে-সরকারী সংস্থা, সামাজিক সংগঠনছাড়াও জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে দাপ্তরিক ও ব্যাক্তিগতভাবে নিরবে নিভৃতে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করে চলেছেন।
কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ত্রান বিতরণ কার্যক্রম প্রচার করা হচ্ছে না। বিষয়টি নিয়ে অনেকের মনে নানা প্রশ্ন দেখা দেয়।


এ বিষয়ে কনক কান্তি দাসের সাথে কথা হলে তিনি জানান, মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে অামরা মানব কল্যানে নিজেদেরকে নিবেদন করেছি। সকল কৃতিত্ব মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর। কাজই মুখ্য- প্রচার মানেই ইতিবাচক কোন কিছু নয়।


তাছাড়া বাস্তবে লক্ষ্য করেছি অনেক স্বচ্ছল ব্যাক্তি কর্মবিমুখ হওয়ায় রাতারাতি অস্বচ্ছল হয়ে পড়েছে। তারা অতীতের কোন দুর্যোগে কখনও ত্রান গ্রহণ করেননি।

অাজকে তারা জীবন-জীবিকার জন্য ও বেচেঁ থাকার জন্য ত্রান গ্রহণ করছেন। এমন মানুষের সংখ্যা কম নয় । যদি ছবি তুলে প্রচার করা হয় তাহলে ঐ শ্রেনীর মানুষের সামাজিক সম্মান ক্ষুন্ন করা হবে।


তাছাড়াও বিধাতা না করুক চলমান পেক্ষাপট যদি দীর্ঘমেয়েদী হয় তাহলে অামরাওতো অনুরুপ অবস্থার স্বীকার হতে পারি। এ জন্যেই অামি ত্রান বিতরণ সংক্রান্ত প্রচারনা থেকে অামার শুভাকাঙ্খীদের বিরত থাকতে বলেছি। কারন যারা ত্রান সামগ্রী গ্রহণ করছেন সবাই পরিস্থিতির স্বীকার। এখন শুধুই বেচেঁ থাকার সংগ্রাম।


তিনি অারও বলেন, মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ঝিনাইদহ জেলার সকল জাতীয় সংসদ সদস্য মহোদয়, জেলা প্রশাসক মহোদয়, পুলিশ সুপার মহোদয়সহ সকল দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, উপজেলা চেয়ারম্যান বৃন্দ, পৌর মেয়র বৃন্দসহ সকল পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি বৃন্দ, বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং অাওয়ামীলীগসহ সকল সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অামরা এক হয়ে অাত্নমানবতার সেবায় কাজ করে চলেছি।


অন্যদিকে শসস্ত্র বাহীনির দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সদস্য বৃন্দের অকুন্ঠ সমর্থন ও সহযেগিতা অব্যাহত রয়েছে।
চেয়ারম্যান মহোদয়ের সাথে কথা বলে মনে হলো, মানুষের প্রতি কতটা সম্মানবোধ, কতটা মমত্ববোধ ও ভালোবাসা থাকলে একটি মানুষ এতটা উদার হতে পারে?


পরিশেষে তার অসুস্থতার খবর শুনে যারা রোজা রেখেছেন, মন্দীরে প্রার্থনা করেছেন তার ভালোবাসার টানে নিজ জন্মভুমিতে ফিরে এসেছেন। সকলের কাছে তিনি চীর ঋনী হয়ে থাকবেন। সবাইকে করোনার দুর্যোগে সর্তকতার সাথে থাকার পরার্মশ দেন।

তিনি সকলকে করোনার গুজবে কান না দিয়ে সচেতন ও সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। একই সাথে প্রশাসনের নির্দেশ মেনে চলার অনুরোধ জানিয়েছেন।

- Advertisment -

সব খরব

চিত্রশিল্পী ডালিয়া সুলতানা সনি করোনাকালে কিভাবে চলছেন তার জীবন গল্প

  সমীকরণ প্রতিবেদক- ডালিয়া সুলতানা সনি  একজন চিত্রশিল্পী। তিনি রাজশাহী ভার্সিটি চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে পড়াশোনা করেছেন । ছোট কাল...

কি করে ভুলবো তোমায় —উৎসর্গ –লিজা

তুমি ভেবেছিলে তুমি জিতে গেছো?আমাকে একা করে রেখে গিয়ে? হঠাৎ যখন ব্যথ্যায় 'মা ' করে...

ঝিনাইদহে করোনায় খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের বোনসহ উপসর্গে তিনজনের মৃত্যু

ঝিনাইদহ অফিস- ঝিনাইদহে দিন যতই যাচ্ছে ততই করোনার আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। মানুষ সচেতন...

‘আমরা চোর ধরে চোর হয়ে যাচ্ছি’ সমীকরণ প্রতিবেদক: ‘টেস্টের জন্য খুব ভালো টেকনিক্যাল লোক দরকার। তাদের রোগীর বাড়িতে যেতে...